বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ০৮:৪১ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
২১, ২৩ ও ২৫ জুলাইয়ের পরীক্ষা স্থগিত মহেশখালীতে পর্যটকের মরদেহ উদ্ধার কক্সবাজারে কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের সাথে ছাত্রলীগের সংঘর্ষ,ভাংচুর অনির্দিষ্টকালের জন্য দেশের সকল ধরনের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের ঘোষণা দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয় কুতুবদিয়ার মাছ ধরার ট্রলার ডুবি: মাঝিমাল্লা উদ্ধার মহেশখালীতে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে গ্যারেজ মালিক মামুনের মৃত্যু মাতারবাড়ীতে ৫শ মেগাওয়াটের সৌরবিদ্যুৎ কেন্দ্র করবে ইন্দোনেশিয়া “অভিভাবকহীন সন্তানদের থেকে রাষ্ট্রও যেন মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে” উত্তরণ মডেল স্কুল ও কলেজে কিশোর কিশোরীদের দক্ষতা উন্নয়নে স্কুল ও কলেজ পর্যায়ে জলবায়ু ন্যায্যতা ও লিঙ্গ ভিত্তিক সহিংসতা বিষয়ে সচেতনতামূলক সভা অনুষ্ঠিত রামুতে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের নতুন ভবন ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করলেন হুইপ সাইমুম সরওয়ার কমল এমপি

ঢাকায় এসি বিস্ফোরণে দগ্ধ মাতারবাড়ীর শিশু আয়ান আর নেই

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ১২ জুন, ২০২৪
  • ১৩০৬ বার পঠিত
{"remix_data":[],"remix_entry_point":"challenges","source_tags":["local"],"origin":"unknown","total_draw_time":1320297,"total_draw_actions":3,"layers_used":2,"brushes_used":0,"photos_added":0,"total_editor_actions":{},"tools_used":{"transform":1,"draw":1,"addons":1},"is_sticker":false,"edited_since_last_sticker_save":true,"containsFTESticker":false}

এম.এ.কে.রানা, মহেশখালী,কক্সবাজার::
রাজধানীর বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার একটি বাসায় এসি বিস্ফোরণে দগ্ধ তিন বছর বয়সী শিশু আয়ান মারা গেছে।

বুধবার (১২ জুন) রাত ৩টার দিকে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় শিশু আয়ান।

কক্সবাজার থেকে রক্সি আক্তারের মস্তিষ্কে টিউমারের অস্ত্রোপচার করাতেই ঢাকায় যান রক্সি আক্তারসহ পরিবারের ৫ সদস্য। বাসা ভাড়া নিয়েছিলেন বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায়। গত সোমবার (১০ জুন) সন্ধ্যায় ওই বাসায় এসি থেকে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। এতে দগ্ধ হয় শিশু আয়ান (৩), তার নানা আব্দুল মান্নান (৫৫), মা রক্সি আক্তার (২৩), খালা ফুতু আক্তার (২০)। তাদের বাড়ি মহেশখালী উপজেলার মাতারবাড়ী ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ড তিতা মাঝির পাড়া এলাকায়।

রক্সির দেবর আহমদ মোস্তফা জানান, সোমবার সন্ধ্যায় বিদ্যুৎ চলে যায়। কক্ষে এসি চালানো ছিল। বিদ্যুৎ চলে এলে হঠাৎ এসিতে বিস্ফোরণ ঘটে। পরে আশপাশের লোকজন তাঁদের উদ্ধার করেন। তাঁদের প্রথমে এভারকেয়ার হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে রাতে তাঁদের শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়।

জানা যায়, শিশু আয়ানের শরীরের ৭০ শতাংশ পুড়ে গিয়েছিল। আজ ভোরে সে মারা যায়। রক্সির শরীরের ৫৫ শতাংশ, ফুতুর ৫৫ শতাংশ ও আবদুল মন্নানের শরীরের ৫০ শতাংশ পুড়েছে। তাঁদের অবস্থাও আশঙ্কাজনক।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By Bangla Webs