মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ০১:৫৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
৪৫ কোটি টাকার রাস্তা আড়াই বছরেও শেষ হয়নি ৫ কিলোমিটার সড়ক সংস্কার খুটাখালীতে স্বাস্হ্য কমপ্লেক্সের সীমানা-প্রাচীরের একাংশ ভেঙ্গে পড়েঃআরো ভাঙ্গার সম্ভাবনা ১৯ উপজেলায় নির্বাচন স্থগিত! মাতারবাড়ীর “তৈয়্যবিয়া তাহেরিয়া সুন্নিয়া বালিকা দাখিল মাদ্রাসা”সুপার নিয়ম মানছেনা,রশিদ না কেটে টাকা আত্মসাৎ এর অভিযোগ! ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড়, আবহাওয়া অফিসের নতুন বার্তা কুতুবদিয়ায় দুই গ্রুপের সংঘর্ষে নিহত ১ আহত ৬ শেখ রাসেল জাতীয় শিশু কিশোর পরিষদ কক্সবাজার জেলা শাখার পরিচিতি সভা সম্পন্ন ঈদগাঁওতে ফার্নিচার কারখানায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড -কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি মহেশখালীর মাতারবাড়ীতে ২ শিক্ষার্থীকে বলাৎকারের অভিযোগ, অভিযুক্ত শিক্ষক লাপাত্তা ট্যুরিস্ট পুলিশের অভিযানে ছিনতাইকারী সহ আটক-৮

টেকনাফে কোস্টগার্ডের অভিযান: ২লাখ ৪৫ হাজার ইয়াবা উদ্ধার

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ২৭ আগস্ট, ২০২১
  • ১৬৪ বার পঠিত

এম এ হাসান, টেকনাফ (কক্সবাজার) প্রতিনিধি।

কক্সবাজারের সীমান্ত উপজেলা টেকনাফে যেন ইয়াবা প্রবেশের জোয়ার এসেছে। গেল কয়েক দিন ধরে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে আটক হচ্ছে মরণ নেশা ইয়াবার বড় বড় চালান। গত- ৩/৪ দিনের ব্যবধানে বিজিবি, পুলিশ ও ডিএনসি সহ আজ
টেকনাফে বাংলাদেশ কোস্টগার্ড স্টেশনের সদস্যরা মেরিন ড্রাইভ সড়কের হাবির ছড় এলাকায় অভিযান চালিয়ে ২ লাখ ৪৫ হাজার পিস ইয়াবা ট্যাবলেট জব্দ করেছে। ২৭ আগস্ট (শুক্রবার) দুপুরে বাংলাদেশ কোস্টগার্ড সদর দপ্তরের মিডিয়া কর্মকর্তা লেঃ কমান্ডার আমিরুল হক এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে টেকনাফ স্টেশন কমান্ডার লেঃ কমান্ডার এম নাঈম উল হকের নেতৃত্বে কোস্টগার্ডের একদল সদস্য ভোর রাতে ওই এলাকায় একটি বিশেষ অভিযান করা হয়। অভিযানকালে কয়েকজন ব্যক্তিকে কাঁধে ব্যাগ নিয়ে আসতে দেখা যায়। তাদের গতিবিধি সন্দেহজনক মনে হলে কোস্টগার্ড তাদের টর্চ লাইট ও বাঁশি দিয়ে থামার নির্দেশ দেয়। কোস্টগার্ডের উপস্থিতি টের পেয়ে ব্যাগ ফেলে তারা পাশের ঝাউ বনের মধ্যে পালিয়ে যায়। পরে ব্যাগের ভেতর থেকে ২ লাখ ৪৫ হাজার পিস ইয়াবা ট্যাবলেট জব্দ করা হয়। জব্দকৃত ইয়াবা পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য টেকনাফ মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানান কোস্টগার্ড কর্মকর্তা। কোস্টগার্ড কর্মকর্তা আরও বলেন, ‘বাংলাদেশ কোস্টগার্ডের আওতাভুক্ত এলাকা সমূহে আইনশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণ, জননিরাপত্তার পাশাপাশি বনদস্যুতা, ডাকাতি দমন ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ রোধে জিরো টলারেন্স নীতি অবলম্বন করে নিয়মিত অভিযান অব্যাহত আছে এবং ভবিষ্যতেও থাকবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By Bangla Webs