সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১২:৩৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
মহেশখালীতে আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বর্ণাঢ্য র‍্যালি মাতারবাড়ীতে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে উপজেলা চেয়ারম্যান জয়নাল আবেদীনের ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ মহেশখালী প্রেসক্লাবে প্রয়াত সাংবাদিক শফিকুল্লাহ খানের স্মরণে দোয়া মাহফিল কক্সবাজার পৌরশহরে বাদশাঘোনায় পাহাড় ধ্বসে ঘুমন্ত অবস্থায় স্বামী-স্ত্রীর মুৃত্যু! ছোট মহেশখালীতে নিখোঁজ মা-ভাইয়ের সন্ধান পেতে সন্তানের আকুতি খোন্দকারপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত বর্ষার শুরুতেই কক্সবাজারের উখিয়ায় দুটি রোহিঙ্গা ক্যাম্পে পাহাড়ধস,নিহত-১১ কক্সবাজারে ‘মাদক প্রতিরোধে সামাজিক আন্দোলনের গুরুত্ব’ শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত রামুতে ৮টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অংশগ্রহনে দুর্নীতি বিরোধী বিতর্ক প্রতিযোগিতা উদ্বোধন ঢাকায় এসি বিস্ফোরণ: জীবন যুদ্ধে হেরে গেলেন মহেশখালী মাতারবাড়ীর আবদুল মান্নান

জনপ্রিয়তায় শীর্ষে তালেব আস্থার প্রতীক টেলিফোন বলছেন উপজেলাবাসী

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ১৬ মে, ২০২৪
  • ৭৫ বার পঠিত

আজিজুর রহমান রাজু ঈদগাঁও:

আগামী ২১ মে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে পাঁচ ইউনিয়নকে নিয়ে নব গঠিত ঈদগাঁও উপজেলা পরিষদের প্রথম নির্বাচন।
এ নির্বাচনকে ঘিরে প্রার্থীগণ ভোটারদের কাছে গিয়ে দোয়া ও ভোট প্রার্থনা করেছেন প্রার্থীরা।
উপজেলার ৫টি ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় ভোটারদের সাথে কথা বলে জানা গেছে,সৎ-পরিচ্ছন্ন ব্যক্তি হিসেবে চেয়ারম্যান প্রার্থী আবু তালেবের এলাকায় রয়েছে ব্যাপক গ্রহণ যোগ্যতা। বয়োজ্যেষ্ঠ, তরুণ ও নতুন ভোটারদের কাছেও সমান জনপ্রিয়। তিনি সৎ, যোগ্য, মানবিক একজন মানুষ।

যাকে বিশ্বাস করে ভোট দেওয়া যায়। তিনি জনগণের আমানতের প্রতিদান অবশ্যই দিবে বলে বলছেন ভোটাররা৷ তার নির্বাচনী এলাকা ঈদগাঁও উপজেলার পাঁচ ইউনিয়ন, হাট-বাজার, পথে-প্রান্তরে ও পাড়া-মহল্লায় সর্বত্র ব্যাপক নির্বাচনী প্রচার প্রচারণা করেছেন এই নেতা। উপজেলার চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী সমাজ সেবক, শিক্ষানুরাগী মোঃ আবু তালেবের টেলিফোন মার্কার নির্বাচনী প্রচারণা ও গণসংযোগে নারী পুরুষসহ সকল বয়সের মানুষের ঢল নেমেছে উপজেলার সর্বত্র।

প্রতিদিন তার নিজ গ্রামের সাধারণ মানুষসহ বিভিন্ন ইউনিয়নের সাধারণ মানুষ ঐক্যবদ্ধ হয়ে মাঠে নেমেছে। তিনি জনপ্রিয়তায় শীর্ষে থেকেও তার বিজয় নিশ্চিত করতে স্থানীয় ভোটারদের সঙ্গে প্রতিদিনই শুভেচ্ছা বিনিময়, মতবিনিময় ও দোয়া চেয়ে ব্যাপক প্রচার-প্রচারণা ও উঠান বৈঠক চালিয়ে যাচ্ছেন।

উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে আবু তালেবের এই নির্বাচনে বিপুল ভোটে জয়ী হবেন বলে তিনি আশাবাদী। সাধারণ ভোটার, নারী-পুরুষ ও তরুণদের মধ্যেও ভোটের মাঠে আলোচনার শীর্ষে রয়েছেন এই চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী।
নির্বাচনী গণসংযোগে টেলিফোন মার্কায় ভোট প্রার্থনা কালে যেখানে যাচ্ছেন সেখানেই সকল বয়সের মানুষের মাঝে উৎসাহ উদ্দীপনা নিয়ে এগিয়ে আসছে জনতার ঢল, রূপ নিচ্ছে জনপ্রিয়তা।

উপজেলার সচেতন ভোটারগণ নিজ নিজ সিদ্ধান্তে এই নির্বাচনে টেলিফোন মার্কায় ভোট দিতে ঐক্যবদ্ধ হয়ে ভোট কেন্দ্রে উপস্থিত হওয়ার আশা ব্যক্ত করেছেন তারা। স্ব-উদ্যোগে এগিয়ে আসছেন টেলিফোন মার্কার নির্বাচনী প্রচার প্রচারণায়। নিরপেক্ষ নির্বাচন হলে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী আবু তালেব বিপুল ভোটে জয়ী হবেন বলে মনে করেন উপজেলার সর্বস্তরের জনগণ।

উপজেলার এক বাসিন্দা শাহিন বলেন, আমরা তরুণ ভোটার, আর তালেব ভাই তারুণ্যের প্রতীক, তাই আমার পরিবার স্বজন ও বন্ধুদের ভোট তিনিই পাবেন। নির্বাচিত হয়ে তিনি এলাকার উন্নয়নে অবদান রাখবেন। তাই অধিকাংশ ভোটার তাকেই ভোট দিবেন। এছাড়া তার বিকল্প কেউ নেই।

উপজেলার চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী আবু তালেব জানান, আমার নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি জনগণের পাশে থাকতে চাই। আমার দীর্ঘ ৪০ বছর রাজনৈতিক জীবনে মানুষের পাশেই ছিলাম। মানুষ হিসেবে আমি কেমন তা আজ উপজেলার সর্বস্তরের মানুষের প্রাণের প্রতীকে রূপ নিয়েছে আমার নির্বাচনী প্রতীক টেলিফোন মার্কা। সব কিছু ঠিক থাকলে ইনশাআল্লাহ আগামী ২১ মে টেলিফোন মার্কায় ভোট দিয়ে জনগণ আমাকে বিজয়ী করবেন আশা করছি।

নির্বাচনে আমি জয়ী হলে এই উপজেলাকে কিছু দিতে চাই। গরিব দুঃখী অসহায় মেহনতি মানুষের সেবায় নিয়োজিত থাকবো ইনশাআল্লাহ। তাই সবার কাছে দোয়া ও ভোট চাই। আপনারা আমার জন্য দোয়া করবেন এবং নির্বাচনে আমার সাথে থেকে আপনার মূল্যবান ভোটটি টেলিফোন মার্কায় দিবেন।

তিনি আরও জানান, উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে যদি জনগণের ভোটে তিনি জয়ী হন তাহলে সবার সহযোগিতায় কক্সবাজারের ঈদগাঁও উপজেলাকে একটি আধুনিক ও স্মার্ট উপজেলা হিসেবে গড়ে তুলবেন।

তরুণ সমাজ সেবক ও উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভ চেয়ারম্যান প্রার্থী এবার স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ থেকে শুরু করে স্থানীয় রাজনীতিক ও সাধারণ ভোটারদের ভালোবাসায় সিক্ত হয়ে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

ইতোমধ্যেই নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণায় নেমে পড়েছেন তার সমর্থকরা। উপজেলার সর্বত্র তার ব্যানার-ফেস্টুনে ছেয়ে গেছে। প্রতিদিনই উপজেলার বিভিন্ন শহর এলাকা থেকে শুরু করে প্রত্যন্ত অঞ্চলে ভোটারদের দ্বারে দ্বারে গিয়ে দোয়া ও ভোট প্রার্থনা করেছেন তিনি।

দলমত নির্বিশেষে তিনি সবসময় দরিদ্র ও অসহায় মানুষদের পাশে বন্ধু এবং সুখ-দুঃখের সাথি হিসেবে পাশে দাঁড়িয়েছেন। এ কারণে তিনি দলমত নির্বিশেষে উপজেলার সর্বস্তরের মানুষের কাছে পছন্দের প্রার্থী বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By Bangla Webs