মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ০১:৩৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
৪৫ কোটি টাকার রাস্তা আড়াই বছরেও শেষ হয়নি ৫ কিলোমিটার সড়ক সংস্কার খুটাখালীতে স্বাস্হ্য কমপ্লেক্সের সীমানা-প্রাচীরের একাংশ ভেঙ্গে পড়েঃআরো ভাঙ্গার সম্ভাবনা ১৯ উপজেলায় নির্বাচন স্থগিত! মাতারবাড়ীর “তৈয়্যবিয়া তাহেরিয়া সুন্নিয়া বালিকা দাখিল মাদ্রাসা”সুপার নিয়ম মানছেনা,রশিদ না কেটে টাকা আত্মসাৎ এর অভিযোগ! ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড়, আবহাওয়া অফিসের নতুন বার্তা কুতুবদিয়ায় দুই গ্রুপের সংঘর্ষে নিহত ১ আহত ৬ শেখ রাসেল জাতীয় শিশু কিশোর পরিষদ কক্সবাজার জেলা শাখার পরিচিতি সভা সম্পন্ন ঈদগাঁওতে ফার্নিচার কারখানায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড -কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি মহেশখালীর মাতারবাড়ীতে ২ শিক্ষার্থীকে বলাৎকারের অভিযোগ, অভিযুক্ত শিক্ষক লাপাত্তা ট্যুরিস্ট পুলিশের অভিযানে ছিনতাইকারী সহ আটক-৮

চকরিয়ায় ১৯টি বুনো হাতির একটি পাল লোকালয়ে

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ২৭ আগস্ট, ২০২১
  • ১৭৩ বার পঠিত

জিয়াউল হক জিয়া,চকরিয়াঃ

কক্সবাজার উত্তর বন বিভাগের,ফাঁসিয়াখালী রেঞ্জের অধীন,চকরিয়াস্হ সুরাজপুর-মানিকপুর ইউনিয়নের ১৯টির মত বুনো হাতির একটি পাল ঢুকে পড়ল লোকালয়ে। শুক্রবার (২৭আগষ্ট) সকাল ৬টার দিকে বুনো হাতির পালটি মানিকপুর বন বিটের অধীনে সুরাজপুর দক্ষিণের ছিড়ামোরা নামক এলাকায় এখনো অবস্থানরত আছেন। স্হানীয়রা জানান,মানিকপুর বনবিটের অধীন ছিড়ামোরা এলাকার সুরাজপুর পাবলিক উচ্চ বিদ্যালয় সংলগ্ন দক্ষিণ পাশে পাহাড়ে অবস্হানরত আছেন।ওখানে কৃষকদের অনেক ধরণের ক্ষেতখামার আছে। এসবের ক্ষতি করছেন কিনা জানি না।তবে এক সাথে এতগুলো বুনো হাতি আর কখনো দেখিনি।বিধায় রাতে যদি মহল্লায় আক্রমণ করে। তাহলে কেউ প্রাণে বাঁচতে পারবেনা মনে আতঙ্কে আছেন তারা।পাহাড়ের ভিতরে যদি গহীন বন থাকতো।তাহলে এতগুলো হাতি কেন এখানে আসতো বলে প্রশ্ন তুলেন স্হানীয়রা। এবিষয়ে ফাঁসিয়াখালী রেঞ্জকর্মকর্তা ও সহকারী বনসংরক্ষক(এসিএফ) আশিকুর রহমান বলেন,হঠাৎ বুনো হাতির একটি পাল লোকালয়ে এসেছে ঠিক।তবে বুনো হাতির পালটিকে নিরাপদে যেন বনে ফিরিয়ে দেওয়া যায়।তার জন্য বনকর্মীরা কাজ চালাচ্ছেন।তবে মহল্লার থেকে দুরে অবস্থান করছেন বুনোহাতি পালটি।বুনোহাতি আসলেও,কারো ক্ষতি এখনো করেনি।করতে না পারার মত পাহারায় বনকর্মীর একাধিক টিম মাঠে আছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By Bangla Webs