মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ০২:১৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
৪৫ কোটি টাকার রাস্তা আড়াই বছরেও শেষ হয়নি ৫ কিলোমিটার সড়ক সংস্কার খুটাখালীতে স্বাস্হ্য কমপ্লেক্সের সীমানা-প্রাচীরের একাংশ ভেঙ্গে পড়েঃআরো ভাঙ্গার সম্ভাবনা ১৯ উপজেলায় নির্বাচন স্থগিত! মাতারবাড়ীর “তৈয়্যবিয়া তাহেরিয়া সুন্নিয়া বালিকা দাখিল মাদ্রাসা”সুপার নিয়ম মানছেনা,রশিদ না কেটে টাকা আত্মসাৎ এর অভিযোগ! ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড়, আবহাওয়া অফিসের নতুন বার্তা কুতুবদিয়ায় দুই গ্রুপের সংঘর্ষে নিহত ১ আহত ৬ শেখ রাসেল জাতীয় শিশু কিশোর পরিষদ কক্সবাজার জেলা শাখার পরিচিতি সভা সম্পন্ন ঈদগাঁওতে ফার্নিচার কারখানায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড -কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি মহেশখালীর মাতারবাড়ীতে ২ শিক্ষার্থীকে বলাৎকারের অভিযোগ, অভিযুক্ত শিক্ষক লাপাত্তা ট্যুরিস্ট পুলিশের অভিযানে ছিনতাইকারী সহ আটক-৮

চকরিয়ায় দুই স্কুলছাত্রীকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ : থানায় মামলা দায়ের

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ২৫ জুন, ২০২১
  • ২৬০ বার পঠিত

স্টাফ রিপোর্টারঃ

কক্সবাজারের চকরিয়ায় দশম ও অষ্টম শ্রেণীর দুই স্কুল ছাত্রীকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ উঠেছে। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে আক্রান্ত ছাত্রীদের উদ্ধার করেছে। গত ২২ জুন রাতে এ ঘটনা ঘটলেও ২৪ জুন রাতে আক্রান্ত ছাত্রীর বাবা থানায় ঘটনার বিষয়ে
এজাহার দায়ের করলে যৌন নিপীড়নের বিষয়টি জানাজানি হয়।

উপজেলার উপকূলীয় বদরখালী ইউনিয়নের ৫নম্বর ওয়ার্ডস্থ লম্বাখালী পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।

আক্রান্তের পরিবার ও মামলার এজাহার সূত্র জানাগেছে, ভিকটিমের বাবা-মা তাদের পাশ্বোক্ত এক প্রতিবেশীর ছেলে অসুস্থ হওয়ায় তাকে নিয়ে ওই বাড়ির লোকজনসহ
চিকিৎসা করাতে যান। ওই দিন স্কুল পড়ুয়া অষ্টম শ্রেণীর ছাত্রীকে রাতে প্রতিবেশী অসুস্থ ছেলের বাড়িতে তাদের মেয়ের সাথে থাকতে বলেন। সেই সুযোগে একই এলাকার জয়নাল আবেদীন প্রকাশ জনু মাঝির ছেলে
আবু হাসান মোহাম্মদ ইব্রাহিম জুয়েল (২৫) ভিন্ন অজুহাত দেখিয়ে দরজা খুলতে বলেন ওই কিশোরীদের। দরজা খুলতেই অষ্টম শ্রেণীতে পডুয়া ছাত্রীকে জুয়েল চেতনানাশক
হাতে রুমাল দিয়ে মুখ চেপে ধরে অজ্ঞান করেন। পরে অপর ছাত্রীকে ভয়ভীতি দেখিয়ে ঘুমের ঔষুধ খাওয়াতে বাধ্য করে। পরে তারা দুইজনই অজ্ঞান হয়ে পড়লে অভিযুক্ত জুয়েল তাদের যৌন নিপীড়ন চালায়। সকালে তাদের জ্ঞান ফিরলে তারা কান্নাকাটি শুরু করে পরে প্রতিবেশীর বাড়িতে থাকা ছাত্রীসহ তাদের ঘটে যাওয়া যৌন নিপীড়নের ঘটনা বাবা-মা’র কাছে বিষয়টি জানায়। পরে আক্রান্তের পরিবার ৯৯৯ হেল্প লাইনে ফোন দিয়ে অভিযোগ করে। চকরিয়া থানা পুলিশের একটি টিম দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌছে তাদের উদ্ধার পূর্বক
পুলিশ ঘটনার বিবরণ শুনে দুই ছাত্রীকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতাল (ওসিসিতে) ওয়ানস্টপ ক্রাইসিস পাঠানো হয়।
চাঞ্চল্যকর এ ঘটনা নিয়ে আক্রান্ত এক ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে ২৪ জুন রাতে
যৌন নিপীড়নের ঘটনায় এজাহার দায়ের করেন।

যৌন নিপীড়নের ঘটনার বিষয়ে চকরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শাকের মোহাম্মদ যুবায়ের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ভিকটিম দুই জনকে উদ্ধার করে চিকিৎসা জন্য কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে ওসিসিতে পাঠানো হয়েছে। এ নিয়ে এক ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেন। আসামি গ্রেপ্তারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে তিনি জানান।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By Bangla Webs