শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ০১:২৫ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
কুতুবদিয়ায় দুই গ্রুপের সংঘর্ষে নিহত ১ আহত ৬ শেখ রাসেল জাতীয় শিশু কিশোর পরিষদ কক্সবাজার জেলা শাখার পরিচিতি সভা সম্পন্ন ঈদগাঁওতে ফার্নিচার কারখানায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড -কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি মহেশখালীর মাতারবাড়ীতে ২ শিক্ষার্থীকে বলাৎকারের অভিযোগ, অভিযুক্ত শিক্ষক লাপাত্তা ট্যুরিস্ট পুলিশের অভিযানে ছিনতাইকারী সহ আটক-৮ জনপ্রিয়তায় শীর্ষে তালেব আস্থার প্রতীক টেলিফোন বলছেন উপজেলাবাসী উখিয়ার লাল পাহাড়ে র‍‍্যাবের অভিযানে আরসা’র প্রধান সহ আটক-২ ২১ বছর পর মায়ের মৃত্যুর ক্ষতিপূরণ অনাথ শিশুকে বুঝিয়ে দিলেন ইঞ্জিনিয়ার সহিদুজ্জামান! খুটাখালীতে বালু উত্তোলনকারী নাম বাদ দিয়ে নিরহ লোকের নামে অপপ্রচার ছোট মহেশখালী রাহাতজান পাড়া জামে মসজিদের মাইক চুরি

চকরিয়ায় ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদ করায় স্কুলে ঢুকে এক ছাত্রের দাঁত ভেঙ্গে ঘাঁড ভেঙ্গে দিল একদল বহিরাগত

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ১৮৯ বার পঠিত

চকরিয়া প্রতিনিধিঃ

চকরিয়া পালাকাটা উচ্চ বিদ্যালয়ে নবম শ্রেণীর এক ছাত্র কর্তৃক দশম শ্রেণীর ছাত্রীকে অশ্লীল উক্তি করে ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদ করায় একদল বহিরাগত বখাটে যুবক স্কুলের ক্লাসে ঢুকে বাটাম দিয়ে ১০/১২ জন ছাত্রকে বেদম প্রহার করেছে। মারধরে গুরুতর আহত এক ছাত্রের দুইটি দাঁত ও ঘাঁড়ের হাট ভেঙ্গে যাওয়ায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করা হয়েছে। ঘটনার পরপর ৪ বখাটেকে ধরে পুলিশে সোপর্দ করেছে স্কুল কর্তৃপক্ষ। সরেজমিনে জানা যায়, চকরিয়া উপজেলার স্বনামধন্য শিক্ষা প্রতিষ্টান পালাকাটা উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর শিক্ষার্থী আনাস (১৬) দশম শ্রেণীর এক ছাত্রীর সাথে অশ্লীল উক্তি করে ইভটিজিং করে। উক্ত ছাত্রী বিষয়টি তার ক্লাস বন্ধুদের কাছে জানালে ওই ছাত্রীর দশম শ্রেণীর কয়েজন বন্ধু বখাটে আনাছকে থাপ্পর দিয়ে শাসায়। এ ঘটনার পর বখাটে আনাছ প্রতিশোধ নিতে মোবাইল ফোনে বহিরাগত বন্ধুদের ডেকে এনে বুঝায়। দুপুর দেড়টায় স্কুল ছুটির সাথে সাথে ৭-১০ জন বহিরাগত বখাটে যুবক হাতুড়ি ও কাঠের বাটাম নিয়ে স্কুলের দশম শ্রেণীর ক্লাসে ঢুকে পড়ে। এবং হাঁতুড়ি ও বাটাম নিয়ে ১০/১৫ জন শিক্ষার্থীকে বেদম মারধর করে। মারধরে দশম শ্রেণীর ছাত্র ফরহাদুল ইসলাম (১৬) এর দুইটি দাঁত পড়ে যায় এবং ঘাঁড়ের হাঁড় ভেঙ্গে অজ্ঞান হয়ে রক্ত বমি হয়। ঘটনার সাথে সাথে স্কুল কমিটির সভাপতি মুক্তিযুদ্ধা কেএম ছালাউদ্দিন এবং প্রধান শিক্ষক রেজাউল করিম বিএসসি সহ শিক্ষকরা এগিয়ে এসে আহতদের উদ্ধার করে ৪ বখাটেকে আটক করলেও অপরাপররা। পরে চকরিয়া থানাকে খবর দিলে চকরিয়া থানার এএসআই আমিরুল ইসলাম সঙ্গিয় ফোর্স ধৃতদের থানায় নিয়ে আসেন। ঘটনাস্থলে আহত ফরহাদুল ইসলাম (১৬) চিরিঙ্গা ইউনিয়নের সওদাগর ঘোনার লবন ব্যবসায়ী নুরুল আমিনের পুত্র।
এ ব্যাপারে আহত ফরহাদুল ইসলামের মা বাদী হয়ে ধৃত ৪ জন ও পলাতক একজন সহ ৫ জন বখাটের নাম উল্লেখ করে চকরিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। মামলার আসামীরা হলেন, ধৃত চকরিয়া পৌরসভা ৭ নং ওয়ার্ডের ওবাইদুল হাকিমের পুত্র মোহাম্মদ জিহাদ (১৮), ও রহমত আলীর পুত্র সওকত ওসমান (২২), চিরিঙ্গা মধ্যম বুড়িপুকুরের আনোয়ার মিয়ার পুত্র আশরাফ হোছেন আনাছ (১৬)ও মৃত নুর মোহাম্মদের পুত্র আব্দুল্লা আল রাকিব (১৮) এবং মনছুর আলমের পুত্র পালিয়ে যাওয়া সাইমুন ইসলাম (২০)।
এ ব্যাপারে চকরিয়া থানার এএসআই আমিরুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন। তিনি স্কুলে ঢুকে শিক্ষার্থীদের মারধর করার অপরাধে ৪ বখাটেকে গ্রেফতারের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By Bangla Webs