মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ০২:০৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
৪৫ কোটি টাকার রাস্তা আড়াই বছরেও শেষ হয়নি ৫ কিলোমিটার সড়ক সংস্কার খুটাখালীতে স্বাস্হ্য কমপ্লেক্সের সীমানা-প্রাচীরের একাংশ ভেঙ্গে পড়েঃআরো ভাঙ্গার সম্ভাবনা ১৯ উপজেলায় নির্বাচন স্থগিত! মাতারবাড়ীর “তৈয়্যবিয়া তাহেরিয়া সুন্নিয়া বালিকা দাখিল মাদ্রাসা”সুপার নিয়ম মানছেনা,রশিদ না কেটে টাকা আত্মসাৎ এর অভিযোগ! ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড়, আবহাওয়া অফিসের নতুন বার্তা কুতুবদিয়ায় দুই গ্রুপের সংঘর্ষে নিহত ১ আহত ৬ শেখ রাসেল জাতীয় শিশু কিশোর পরিষদ কক্সবাজার জেলা শাখার পরিচিতি সভা সম্পন্ন ঈদগাঁওতে ফার্নিচার কারখানায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড -কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি মহেশখালীর মাতারবাড়ীতে ২ শিক্ষার্থীকে বলাৎকারের অভিযোগ, অভিযুক্ত শিক্ষক লাপাত্তা ট্যুরিস্ট পুলিশের অভিযানে ছিনতাইকারী সহ আটক-৮

চকরিয়ায় ইভটিজিংনে বাধা দেওয়ায় স্কুল প্রধানকে ছুরিকাঘাত করে বখাটেরা

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ৫ ফেব্রুয়ারী, ২০২২
  • ২৪৩ বার পঠিত

চকরিয়া প্রতিনিধিঃ

চকরিয়ায় ইভটিজিংনে বাধা দেওয়ায় মোঃ সালেহ উদ্দিন (৪০) নামের একজন প্রধান শিক্ষককে উপর্যুপুরি মারধর ও ছুরিকাঘাত করে বখাটেরা।
গতকাল শুক্রবার (৪ ফেব্রুয়ারি) রাত ৯টার দিকে উপজেলার চিরিঙ্গা ইউনিয়নের চরণদ্বীপ এলাকায় ন্যাক্কারজনক ঘটনা ঘটে। হামলার শিকার আহত শিক্ষক মোঃ সালেহ উদ্দিন (৪০) চরণদ্বীপ উপকূলীয় ভূমিহীন উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এবং একই ইউনিয়নের বাসিন্দা মৃত হাজী মৌলানা হাবিবুর রহমানের পুত্র। আহতের ভাই মোঃশরীফুল ইসলাম কর্মরত সাংবাদিকদের কে জানান, ‘বিদ্যালয়ে আসা-যাওয়ার পথে নবম শ্রেণী পড়ুয়া এক ছাত্রীকে প্রতিনিয়ত উত্যক্ত করে স্থানীয় আবদুল হাফেজের পুত্র ইব্রাহিম খলিলের নেতৃত্বে ৪-৫ জন বখাটে যুবক।এবিষয়ে পূর্বেও স্হানীয় ভাবে বেশ কয়েববার শালিস-বিচারও হয়েছিল। গত এক সপ্তাহ আগেও ইভটিজিং ঘটনা আবারও বিচার হয়।এই বিচারে মধ্য শালিস কারকদেরকে মুছলেকা দিয়ে ছাড়া পায় বখাটে ইব্রাহিম ও খলিল।বিচারে মুছলেকা দেওয়ার উপর ক্ষিপ্ত হয়ে শুক্রবার রাতে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃসালেহ উদ্দিন স্থানীয় ফুলকাটা সড়কের মাথায় পৌছলে তাকে গতিরোধ করে বখাটেরা।গতিরোধে সাথে-সাথে ইব্রাহিম ও খলিলের নেতৃত্বে ৪-৫ জন বখাটে যুবকেরা ওই শিক্ষককে হাতুড়ি দিয়ে উপর্যুপুরি মারধর ও ছুরিকাঘাত করে।এসময় প্রধান শিক্ষক সালেহ উদ্দিনের চিৎকারে লোকজন এগিয়ে আসলে তারা পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়া রক্তাক্ত অবস্হায় তাকে উদ্ধারে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক প্রাথমিক সেবাদানের শেষে উন্নত তাকে কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করেন। বর্তমানে সেখানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন এই শিক্ষক।

এই বিষয়ে চকরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ ওসমান গণি বলেন,ঘটনাটি শুনেছি। তবে এই বিষয়ে এখনো আহত পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ পায়নি।তবু একজন স্কুল প্রধানের উপর হামলাকারীদের দরতে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By Bangla Webs