শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ০৫:২০ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
২১, ২৩ ও ২৫ জুলাইয়ের পরীক্ষা স্থগিত মহেশখালীতে পর্যটকের মরদেহ উদ্ধার কক্সবাজারে কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের সাথে ছাত্রলীগের সংঘর্ষ,ভাংচুর অনির্দিষ্টকালের জন্য দেশের সকল ধরনের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের ঘোষণা দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয় কুতুবদিয়ার মাছ ধরার ট্রলার ডুবি: মাঝিমাল্লা উদ্ধার মহেশখালীতে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে গ্যারেজ মালিক মামুনের মৃত্যু মাতারবাড়ীতে ৫শ মেগাওয়াটের সৌরবিদ্যুৎ কেন্দ্র করবে ইন্দোনেশিয়া “অভিভাবকহীন সন্তানদের থেকে রাষ্ট্রও যেন মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে” উত্তরণ মডেল স্কুল ও কলেজে কিশোর কিশোরীদের দক্ষতা উন্নয়নে স্কুল ও কলেজ পর্যায়ে জলবায়ু ন্যায্যতা ও লিঙ্গ ভিত্তিক সহিংসতা বিষয়ে সচেতনতামূলক সভা অনুষ্ঠিত রামুতে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের নতুন ভবন ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করলেন হুইপ সাইমুম সরওয়ার কমল এমপি

খুটাখালী খালের চর দখল করে স্থাপনা নির্মাণ

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ২০ আগস্ট, ২০২১
  • ২২৫ বার পঠিত

চকরিয়া(কক্সবাজার)প্রতিনিধিঃ

কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার খুটাখালী খালের চর দখল করে স্হাপনা নির্মাণের অভিযোগ উঠেছে।

সরেজমিনে দেখা যায়,মহাসড়ক হয়ে হাজীপাড়া-শান্তিবাজার গ্রামীণ সংযোগ সড়কে মধ্যখানে উত্তর পাড়াস্হ খালের চর দখল করে পাকাঁ দালান নির্মাণ কাজ চলমান।চর দখলকারী একই এলাকার আকবর আহমদের পুত্র রেজাউল করিম বলে জানান গেছে।স্হানীয়রা জানান,জায়গাটি খাস জায়গা ছিল।এর উত্তরের গ্রামীণ সড়কে লাগোয়া জায়গাগুলো তাদের খতিয়ানি জায়গা।তাই দখলদাররেরা তাদের জায়গার মাথাখিলা জমি দাবী করে জীবন ঝুঁকি নিয়ে পাকা দালান ঘর তৈরী করে চলছে।যেকোন সময় উজান থেকে আসা বর্ষার পাহাড়ী ঢলের পানিতে তলিয়ে যাওয়ার সম্ভবনা রয়েছে।তারা গ্রামের কারো উপদেশ মানছেনা বলে জানিয়েছেন।
দখলদার রেজাউল করিমের ভাই নুরুল ইসলাম জানান,গ্রামীণ সড়কের দক্ষিণে লাগোয়া খাল সংলগ্ন জায়গা হলেও,জায়গাটি দীর্ঘ অনেক বছর ধরে আমার পিতার ভোগদখলীয় জায়গা।তাছাড়া জায়গাটি আমার পিতার নামীয় জমির মাথাখিলা জায়গা। আবার বলে খতিয়ানি জায়গা।তাই আমার মাথা গোচার জায়গা না থাকায় এখানে ঘরটি করছি।নসিবে না থাকলে ভবিষ্যৎতে হারালে হারাবো।ততক্ষণ এখানেই থাকবো।তবে আমি তাদেরকে নিষেধ করছিলাম।

এবিষয়ে খুটাখালী ইউপির ৫নং ওয়ার্ডের মেম্বার নুরুল হক বলেন,খালের চরের জায়গাতে জীবন ঝুঁকি নিয়ে ঘর করছে জেনেছি।তারা আমাকে জানাইনি।তবে জায়গাটি খাস জায়গা।যদিও বা উত্তরে পাশ্ববর্তী জায়গাটি তাদের খতিয়ানি।তাই তারা খতিয়ানের মাথাখিলা হিসেবে নিজেরা দাবী করে কাজটি করছে।এতে কেউ বাঁধা দিলে তর্কাতর্কি হওয়ার সম্ভাবনা আছে।যার কারণে পরামর্শ দিলাম না।

এবিষয়ে চকরিয়া সহকারী কমিশনার(ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট রাহাত-উত-জামান বলেন,বিষয়টি জানালেন ভালই হল।এটি তদন্ত পূর্বক আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By Bangla Webs