সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ০১:১১ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
মহেশখালীতে আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বর্ণাঢ্য র‍্যালি মাতারবাড়ীতে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে উপজেলা চেয়ারম্যান জয়নাল আবেদীনের ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ মহেশখালী প্রেসক্লাবে প্রয়াত সাংবাদিক শফিকুল্লাহ খানের স্মরণে দোয়া মাহফিল কক্সবাজার পৌরশহরে বাদশাঘোনায় পাহাড় ধ্বসে ঘুমন্ত অবস্থায় স্বামী-স্ত্রীর মুৃত্যু! ছোট মহেশখালীতে নিখোঁজ মা-ভাইয়ের সন্ধান পেতে সন্তানের আকুতি খোন্দকারপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত বর্ষার শুরুতেই কক্সবাজারের উখিয়ায় দুটি রোহিঙ্গা ক্যাম্পে পাহাড়ধস,নিহত-১১ কক্সবাজারে ‘মাদক প্রতিরোধে সামাজিক আন্দোলনের গুরুত্ব’ শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত রামুতে ৮টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অংশগ্রহনে দুর্নীতি বিরোধী বিতর্ক প্রতিযোগিতা উদ্বোধন ঢাকায় এসি বিস্ফোরণ: জীবন যুদ্ধে হেরে গেলেন মহেশখালী মাতারবাড়ীর আবদুল মান্নান

খুটাখালীতে দিনে-দুপুরে ২ ব্যবসায়ীকে ডাকাতিঃমালামার লুট

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ১১ মে, ২০২৪
  • ৭৮ বার পঠিত

চকরিয়া (কক্সবাজার) প্রতিনিধিঃ
কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার খুটাখালীতে দিনে-দুপুরে ২জন কাঁকড়া ব্যবসায়ীকে ডাকাতি,মারধর সহ মালামাল লুট করেছে চিহ্নিত দূর্বৃত্তরা।
গত শুক্রবার (১০ মে) সকাল ৮টার দিকে খুটাখালীর মেধেরখালের লালগোলা ব্রীজ উপরে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে।

আহতরা ব্যবসায়ীরা হলেন-মোঃআরিফ (১৮) উপজেলার খুটাখালী ইউপির ৩নং ওয়ার্ডের পূর্ব হাজীপাড়া গ্রামের নুরুল ইসলামের ছেলে ও একই গ্রামের মোঃ হোছেনের ছেলে মোঃ আব্দুল্লাহ।

আহত ব্যবসায়ীরা জানান-আমরা বহলতলী মৌজার ছয়টি চিংড়ি ঘেরে চাষকৃত প্রায় ৪৫ কেজি কাঁকড়া ভর্তি ঝুঁড়ি নিয়ে ঘটনার দিন সকালে বাজারের দিকে আসছিলাম।আসার পথে লালগোলা ব্রীজের উপর উঠি।এমতাবস্থায় চিহ্নিত স্বশস্ত্রধারী দূর্বৃত্তরা আমাদের পথরোধ করে ঝুঁড়ি টানা হেঁচড়া করে।তখন আমরা কাঁকড়ার ঝুঁড়ি ছেড়ে না দেওয়ায়,তারা আমরা দুইজনকে এলোপাতাড়ি মারধর করে রক্তাক্ত করে,মাটিতে লুটিয়ে ফেলে।তখন তারা আমাদের ২টি টার্চ মোবাইল,নগদ ১০ হাজার টাকা ও ৪৫ কেজি কাঁকড়া নিয়ে পালিয়ে যায়। পরে কয়েকজন পথচারীরা আমাদেরকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানোর সহযোগিতা করায় প্রাণের বেঁচে যায়।চিহ্নিত দূর্বৃত্তরা হলেন-একই ইউপির ৭নং ওয়ার্ডের উত্তর ফুলছড়ি এলাকার কালুর ছেলে আমির হোছন(৪৫),মৃত কবির আহমদের ছেলে আমান উল্লাহ(৪০) তার ভাই রিয়াদ উল্লাহ(৩০) সহ আরো ৭/৮ জন লোক রয়েছে।বিধায় আমরা জীবনের নিরাপত্তা সহ মালামাল ফেরত পাওয়ার জন্য থানা,আদালতে মামলা করার প্রক্রিয়া করছি।
এবিষয়ে খুটাখালীর চেয়ারম্যান মাওলানা আব্দুর রহমান বলেন,আহত ২ব্যবসায়ীকে আমি দেখেছি।এলাকাতে এমন ন্যাক্কারজনক ঘটনা যেন আর না ঘটে,আমি সমাধানের প্রক্রিয়া চালাচ্ছি।আহতদের কে আগে চিকিৎসা করার পরামর্শ দিয়েছি।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By Bangla Webs