সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১২:০৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
মহেশখালীতে আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বর্ণাঢ্য র‍্যালি মাতারবাড়ীতে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে উপজেলা চেয়ারম্যান জয়নাল আবেদীনের ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ মহেশখালী প্রেসক্লাবে প্রয়াত সাংবাদিক শফিকুল্লাহ খানের স্মরণে দোয়া মাহফিল কক্সবাজার পৌরশহরে বাদশাঘোনায় পাহাড় ধ্বসে ঘুমন্ত অবস্থায় স্বামী-স্ত্রীর মুৃত্যু! ছোট মহেশখালীতে নিখোঁজ মা-ভাইয়ের সন্ধান পেতে সন্তানের আকুতি খোন্দকারপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত বর্ষার শুরুতেই কক্সবাজারের উখিয়ায় দুটি রোহিঙ্গা ক্যাম্পে পাহাড়ধস,নিহত-১১ কক্সবাজারে ‘মাদক প্রতিরোধে সামাজিক আন্দোলনের গুরুত্ব’ শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত রামুতে ৮টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অংশগ্রহনে দুর্নীতি বিরোধী বিতর্ক প্রতিযোগিতা উদ্বোধন ঢাকায় এসি বিস্ফোরণ: জীবন যুদ্ধে হেরে গেলেন মহেশখালী মাতারবাড়ীর আবদুল মান্নান

ঈদগাঁওতে ফার্নিচার কারখানায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড -কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ২৩ মে, ২০২৪
  • ৪৩ বার পঠিত

শেফাইল উদ্দিন:

কক্সবাজারের ঈদগাঁও উপজেলার দেশের বৃহৎ ফার্নিচার মার্কেটের কারখানায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। এতে শফিক নামের এক ফার্নিচার শ্রমিক আহত হয়েছে। এ অগ্নিকান্ডে একটি শো-রুমসহ ছোট বড় মিলিয়ে প্রায় ৫০ টি ফার্নিচার কারখানা সম্পুর্ন ভস্মীভূত হয়ে গেছে। এতে আনুমানিক ২ কোটি টাকার অধিক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে জানান ক্ষতিগ্রস্থরা ।
২২ মে (বুধবার) ভোর ৪ টার দিকে উপজেলার ঈদগাঁও বাজারের বাঁশঘাটা মসজিদ সংলগ্ন এলাকায় এ দূর্ঘটনা ঘটে।


ফার্নিচার ব্যবসায়ীরা জানান, ফজরের নামাজের পরপরই নুরুল ইসলামের কারখানার বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়। মুহুর্তেই আগুন চারদিকে ছড়িয়ে পড়তে শুরু করে।কারণ প্রতি কারখানায় শুকনো কাঠ থাকায় এবং কারখানার ঘর গুলোর বেড়া টিনের,বাঁশের কিংবা কাঠের ও টিনের ছাউনি।এতে আগুনের লেলিহান শিখা দ্রুত এক কারখানা থেকে অন্য কারখানায় ছড়িয়ে পড়ে। অপরদিকে ভোররাত হওয়ায় বাজারবাসী ও প্রতিবেশী এলাকার লোকজন ঘুমন্ত অবস্থায় ছিল তাই লোকজন এগিয়ে আসতে একটু দেরি হয়। সংবাদ পেয়ে রামু ফায়ার সার্ভিস ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণে নিতে চেষ্টা করে স্থানীয়দের সহায়তায়।পরে চকরিয়া ফায়ার সার্ভিস ইউনিটও যোগ দেয়।প্রায় তিন ঘন্টা পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে।ততক্ষণে প্রায় অর্ধশত ফার্নিচার কারখানা সম্পুর্ন ও ফরিদ ফার্নিচার শোরুমের আংশিক পুড়ে যায় বলে নিশ্চিত করেন কাশেম ফার্নিচারের স্বত্বাধিকারী আবুল কাশেম। এ সময় ক্ষতিগ্রস্থ ব্যবসায়ীরা ক্ষোভের সাথে জানান, ঐতিহ্যবাহী ঈদগাঁও বাজারের প্রধান সড়ক- ডিসি সড়কের উভয় পাশ বেদখল এবং অপরিকল্পিতভাবে সড়কের উচ্চতা বেড়ে যাওয়ায় সড়কের উভয় পাশের ভবন গুলোর সাথে সড়কের উচ্চতা কমে আসায় জরুরি সময়ে এ সড়ক দিয়ে ফায়ার সার্ভিস গাড়ি গুলো প্রবেশ করতে পারেনি।পরে বাজারের বহির সড়ক খোদইবাড়ী দিয়ে গাড়ি গুলো প্রবেশ করতে সময় ক্ষেপন হওয়াতে ক্ষয়- ক্ষতির পরিমাণ বেড়েছে। তাই তারা অবিলম্বে ডিসি সড়কের বেদখল হওয়া ফুটপাত উচ্ছেদ ও সড়কের উভয় পাশের ভবন গুলোর বিষয়ে জরুরি পদক্ষেপ গ্রহণের দাবি জানান। পরে সংবাদ পেয়ে দূর্ঘটনাস্থল পরিদর্শনে আসেন সাবেক সাংসদ লুতফুর রহমান কাজল,জালালাবাদের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান আলমগীর তাজ জনিসহ গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ। এদিকে বাজারের হাজারো ব্যবসায়ী ও সচেতন জনগণ দক্ষিণ চট্টগ্রামের বৃহৎ এ বাণিজ্যিক এলাকাকে অগ্নিকাণ্ডের মত দূর্ঘটনা থেকে রক্ষা করতে জরুরি ভিত্তিতে ঈদগাঁও উপজেলায় ফায়ার সার্ভিস স্টেশন স্থাপনে সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের জরুরি হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By Bangla Webs