মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১২:৪৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
৪৫ কোটি টাকার রাস্তা আড়াই বছরেও শেষ হয়নি ৫ কিলোমিটার সড়ক সংস্কার খুটাখালীতে স্বাস্হ্য কমপ্লেক্সের সীমানা-প্রাচীরের একাংশ ভেঙ্গে পড়েঃআরো ভাঙ্গার সম্ভাবনা ১৯ উপজেলায় নির্বাচন স্থগিত! মাতারবাড়ীর “তৈয়্যবিয়া তাহেরিয়া সুন্নিয়া বালিকা দাখিল মাদ্রাসা”সুপার নিয়ম মানছেনা,রশিদ না কেটে টাকা আত্মসাৎ এর অভিযোগ! ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড়, আবহাওয়া অফিসের নতুন বার্তা কুতুবদিয়ায় দুই গ্রুপের সংঘর্ষে নিহত ১ আহত ৬ শেখ রাসেল জাতীয় শিশু কিশোর পরিষদ কক্সবাজার জেলা শাখার পরিচিতি সভা সম্পন্ন ঈদগাঁওতে ফার্নিচার কারখানায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড -কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি মহেশখালীর মাতারবাড়ীতে ২ শিক্ষার্থীকে বলাৎকারের অভিযোগ, অভিযুক্ত শিক্ষক লাপাত্তা ট্যুরিস্ট পুলিশের অভিযানে ছিনতাইকারী সহ আটক-৮

আগুনে ৭ দোকান পুড়ে ছাই, অর্ধকোটি টাকার ক্ষতি

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ২৫ এপ্রিল, ২০২১
  • ৪৪৯ বার পঠিত

কাইছারুল ইসলাম,মহেশখালী
মহেশখালীর কালারমারছড়া ইউনিয়নের সোনা পাড়া আবদুল হাকিমের মার্কেটে অগ্নিকাণ্ডে ৭টি দোকান ভস্মীভূত হয়েছে । এতে প্রায় অর্ধ কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কা করা হচ্ছে।

রবিবার (২৫ এপ্রিল) সকাল ৭টার সময় এই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয় বলে জানা যায়।

স্হানীয় এক বাসিন্দা জানান, মহেশখালীর ফায়ার সার্ভিসকে একাধিক বার ফোন করলে কোন সাড়া না পেয়ে, পরে ৯৯৯ নাম্বার( জরুরি সেবায়) ফোন করে অগ্নিকাণ্ডের বিষয়টি অবগত করেন। মহেশখালী ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছাতে পৌঁছাতে আগুনে পুড়ে ছাই হয় ৭ টি দোকান। পরে প্রায় ১ ঘন্টা এলাকাবাসী ও ফায়ার সার্ভিসের যৌথ প্রচেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে।

বাজারের ব্যবসায়ী সূত্রে জানা যায় ,রবিবার ৭ টার দিকে বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে আগুন লাগে।মুহূর্তের মধ্যে আগুন চারদিকে ছড়িয়ে পড়লে ৭/৮টি দোকান পুড়ে যায়। খবর পেয়ে মহেশখালী ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। প্রায় ১ ঘণ্টা পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে ।

ব্যবসায়ী জুয়েল ও স্থায়ী বাসিন্দা মনির আলম জানান, আগুনে প্রায় ৭টি দোকান পুড়ে গেছে।এইগুলোর মধ্যে তিনটি মুদির দোকান , ১টি কুলিং কর্ণার, ১টি পান-সুপারির আড়ৎ,২টি ফার্মেসী ও ১ টি ইলেক্ট্রনিক্স দোকান রয়েছে। পুড়ে যাওয়া দোকানগুলো হলো নুর মোহাম্মদ সওদাগরের মুদির দোকান,কালামারছড়া সোনা পাড়ার মামুনুর রশিদ( সওঃ) এর কুলিং কর্ণার,জালাল উদ্দিন ও আনসারের সুপারির আড়ৎ,পল্লী চিকিৎসক মঞ্জুর আলম ও আবু ছিদ্দিকের ফার্মেসী এবং জুয়েলের
ইলেক্ট্রনিক্স দোকান। এতে ব্যবসায়ীদের প্রায় অর্ধকোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে জানান তাঁরা।

ক্ষতিগ্রস্ত দোকানের মালিক জুয়েল জানান, আমার ইলেক্ট্রনিক্স দোকানে ৭ লক্ষ টাকার মালামাল ছিল। যা সব পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। ফায়ার সার্ভিসের লোকজন সময় মত না আসার কারণে আমাদের সম্পূর্ণ মালামাল পুড়ে ছাই হয়ে গেছে।

মহেশখালী ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তা বলেন, বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে আগুন লাগে। খবর পাওয়ার কিছুক্ষণের মধ্যেই ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়। এলাকাবাসী ও ফায়ার সার্ভিস এক ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাহফুজুর রহমান বলেন, কালারমারছড়ায় আগুন লাগার ঘটনা শুনে তিনি ঘটনা স্থল পরিদর্শন করেন এবং
ক্ষতিগ্রস্তদের উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে খাদ্য সহায়তা প্রদান করেন।পরবর্তীতে তাঁরা আবেদন করলে টিন ও নগদ অর্থ সহায়তা করবে বলে জানান তিনি ।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By Bangla Webs